20.2 C
Dhaka
৮ জানুয়ারি, মঙ্গলবার , ২০১৯ ০৩:০৫:২৬ অপরাহ্ণ
ভয়েস বাংলা
ক্রিকেট খেলা বিশেষ

অভিষেকেই বাজিমাত করলেন নাঈম হাসান

মাজহারুল ইসলাম, চট্টগ্রাম থেকে: অভিষেকের শুরুতেই যেনো জীবনের রঙিন সময় মেলে ধরলেন স্পিনার নাঈম হাসান। সর্বশেষ জোমেল ওয়ারিকানকে বোল্ড করে পাঁচ উইকেট নিয়ে টেস্ট ইতিহাসে নাম লেখালেন বাংলাদেশের এই তরুণ। এর আগে একই ওভারের তৃতীয় ও ষষ্ঠ বলে দেবেন্দ্র বিশুর পর কেমার রোচকেও এলবির ফাঁদে ফেলে নিজের চতুর্থ উইকেট দখল করেন এই ডানহাতি।

বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ৩২৪ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শেষ পযন্ত ২৪৬ রানে অলআউট হলো সফরকারীরা। আর এরই মধ্যে বাংলাদেশ পেলো ৭৮ রানের লিড। এর আগে উইকেটের দেখা পান মেহেদি হাসান মিরাজ। ক্রমেই ভয়ংকর হয়ে ওঠা শিমরন হেল্টমায়ারকে নিজের ১০ম ওভারে ফেরান মিরাজ। ৪৭ বলে ৬৩ রান করা হেটমায়ার স্পিনার মিরাজের বলে উইকেটের পেছনে মুশফিকুর রহিমের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন।

দলীয় ৩১ রানে প্রথম তিন উইকেট হারানোর পর ৭৭ ও ৮৮ রানে ক্যারিবীয় শিবিরে জোড়া আঘাত করেন অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা নাঈম হাসান। ৩১ রান করা রোস্টন চেজকে ইমরুল কায়েসের ক্যাচে ফেরান তিনি। পরে সুনীল অ্যামব্রিসকে (১৯) এলবির ফাঁদে ফেলেন।

এর আগে ১১তম ওভারে তাইজুল ইসলামের বলে এলবির ফাঁদে পড়ে মাঠ ছাড়েন ১৪ রান করা কাইরান পাওয়েল। পরের ওভারেই প্রথম বল করতে এসে নতুন ব্যাটসম্যান শাহি হোপকে বোল্ড করেন সাকিব আল হাসান। একই ওভারের শেষ বলে ১৩ রান করা অধিনায়ক কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকেও ফেরত পাঠান সাকিব।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রামে ৩২৪ রানে শেষ হয় বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। দ্বিতীয় দিন মাত্র ৯ রান যোগ করতেই শেষ দুটি উইকেট হারায় টাইগাররা। অভিষিক্ত নাঈম হাসান ২৬ ও মোস্তাফিজুর রহমান শূন্য রানে জোমেল ওয়ারিকনের বলে আউট হলে ৪ উইকেট লাভ করেন এই ক্যারিবীয় স্পিনার। তাইজুল ইসলাম ৩৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

মুমিনুল হকের সেঞ্চুরি ও টেলএন্ডারদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে প্রথম ইনিংসে প্রথম দিন শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩১৫ রান করেছিল বাংলাদেশ। আগের দিনের অভিষিক্ত নাঈম হাসান ২৪ ও তাইজুল ইসলাম ৩২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

এর আগে দীর্ঘদিন পর টেস্ট দলে ফেরা সৌম্য সরকারের ব্যর্থতায় শুরু করে টসে জিতে ব্যাটিং নেওয়া বাংলাদেশ। কিন্তু শুরুর বিপর্যয় পুষিয়ে দেন ইমরুল কায়েস ও মুমিনুল হক। ১০৪ রানের জুটি গড়েন তারা।

কায়েস ৪৪ রানে বিদায় নিলেও ক্যারিয়ারের অষ্ঠম সেঞ্চুরি করে বেশ কয়েকটি রেকর্ডের মালিক হন মুমিনুল। শেষ পর্যন্ত তিনি ১৬৭ বলে ১০টি চার ও একটি ছক্কায় ১২০ রানে কেমার রোচের বলে বিদায় নেন। দলের নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ফিরলেও ভালো কিছু করতে পারেননি (৩৪)। ব্যর্থতার খাতায় নাম লেখান মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দুই উইকেটে ১৩ রান।

# ভয়েস বাংলা/ এটি

সম্পর্কিত

তৃতীয় দিনের মতো হিলিতে আমদানি-রফতানি বন্ধ

ডেস্ক রিপোর্ট

পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমির পথে বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্ট

চলে গেলেন ক্ষিপ্রগতির ফুটবলার গফুর

ডেস্ক রিপোর্ট

বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেবার অনুমতি পেল নেইমার

ডেস্ক রিপোর্ট

এএফসি অনূর্ধ্ব -১৬’র শিরোপা জয়ের আশা বাংলাদেশের

ডেস্ক রিপোর্ট

নির্বাচন কমিশনার মাহবুবের পদত্যাগ দাবি ১৪ দলের

ডেস্ক রিপোর্ট

মতামত